জল দিয়ে নেইল আর্ট, টিউটোরিয়েল / ২



জল আমাদের দৈনন্দিন এতো কাজে লাগে, আর আজকের পর থেকে তন্বীদের তো আরও কাজে লাগবে। জল দিয়ে নেইল আর্ট, বিশ্বাস হচ্ছে না তো। কিন্তু জল দিয়েই যে নখে  ফুটিয়ে তোলা যায় দারুন সব নাকসা। কেমন করে ? তাই আজ আমি আপানাদের দেখাবো। আজ আমি আপনাদের যে নেইল আর্ট পদ্ধতি দেখাবো সেটি খুবই সহজ এবং বেশ মজারও বটে। অনেকে হয় তো ভাবতেও পারবেন না যে এভাবেও নেইল আর্ট করা যায়। জল দিয়ে যে কিভাবে নেইল আর্ট করা যায় চলুন দেখ নেই।



যা যা লাগবে –

১। আপনার পছন্দের তিন থেকে চার রকমের নেল কালার
২। ছোট কাঁচের/ প্লাস্টিকে বাটি বা গ্লাস
৩। একটা টুথ পিক
৪। প্লাস্টিক টেপ এবং
৫। পরিষ্কার জল

পদ্ধতি –

নেইল আর্টের আগে খুব ভালো করে নখ পরিষ্কার করে নিন। নখের উপর একটা নেচ্যারেল বেস কালার লাগিয়ে নিন। শুকোতে দিন। তারপর একটি ছোট কাঁচের বাটি বা গ্লাসে স্বচ্ছ পরিষ্কার জল নিন। এবারের কাজটা একটু সাবধানে করতে হবে। গ্লাসের জল স্থির হয়ে গেলে তার মধ্যে নেল কালারের একটা ড্রপ হালকা করে ফেলুন। একপরে  জলের উপর বিন্দুটিতে আবার আরেকটা ড্রপ ফেলুন। এভাবে আপনার পছন্দের কালারগুলিকে একের পর এক ফেলুন। 



বেশ কয়েকবার ফেলার পর একটা টুথ পিক দিয়ে জলের যে কালার ভাসছে তার মধ্যে বার চারের কাটাকুটি করুন হালকা টেনে টেনে। দেখবেন জলের উপর কি সুন্দর নকসা তৈরি হয়েছে। 



জলের এই নকসার উপর আপনার একটি নখ ডুবিয়ে দিন। তবে তার আগে নখের চার পাশের ভালো করে টেপ জড়িয়ে নেবেন। এতে বাড়তি রং আপনার চামড়াতে লাগবে না। খেয়াল রাখবেন নখ যেন না জড়িয়ে যায়। ৫ সেকেন্ডের মতো রাখার পর জল থেকে নখ সরিয়ে নিন। 



এভাবে প্রতিটি নখে ডিজাইন করুন। প্রতিটি নখে ডিজাইন সম্পূর্ন হয়ে গেলে  যদি কোন কারনে বাড়তি রং চামড়াতে লেগে যার তাহলে তা রিমুভার দিয়ে তুলে নিন। সব শেষে  ডিজাইনের উপর একটি নেচ্যারেল বেস কালার লাগিয় ডিজাইনটিকে সিল করে দিন।



আপনাদের জন্য রইল আরও কিছু আইডিয়া 

আইডিয়া ১


আইডিয়া২


আইডিয়া ৩



সঠিক পাত্র -



ব্যাস! হয়ে গেলো জল দিয়ে নেইল আর্ট। এবার আপনাদের পালা ট্রাই করে দেখুন। প্রথমবার হয়তো খুব ভালো নাও হতে পারে। তবে তা বলে নিরাশ হবার কারন নেই। করতে করতে দক্ষ হয়ে যাবেন। কেমন লাগলো আজকের পোস্টটি, অবশ্যই জানাবেন। আগামি নেইল আর্ট টিউটোরিয়েলে নতুন আকেরটি পদ্ধতি শেখাবো। ততদিনে এটি ট্রাই করুন, আর আপনাদের যদি কোন নেইল আর্ট আইডিয়া থাকে তাহলে সেয়ার করুন  তন্বীর এই পাতায়।        
                    

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

1 মন্তব্য

  1. মেয়েদের খুব কাজের টপিক। ধন্যবাদ শেয়ার করার জন্য। ।আপনার এই পোস্ট অনেক উপকারে আসবে আমার বিশ্বাস । এর আগেও একটা নিউজ পেয়েছিলা এই নিউজ ও অনেক উপকারী। যার দরকার হবে দেখতে পারেন। তবে আপানার এটা বাশি ভাল হইছে তাই আবারো লেখককে ধন্যবাদ না দিয়ে পারছি না। তবে এরকম আরো একটি লেখা পড়েছিলাম এখানে> http://muktomoncho.com/archives/2744

    উত্তর দিনমুছুন