ব্রনের কালো দাগ থেকে মুক্তির উপায়


কোমল সুন্দর মুখের অপরূপ সৌন্দর্য যে কোন রকমের দাগ নষ্ট করে দিতে পারে। বিশেষ করে ব্রণের দাগ। ব্রণ সেরে যাওয়ার পরও এর জিদ্দি দাগ সহজে যেতে চায় না। আর এই নিয়ে আমাদের চিন্তারও শেষ নেই। আজ আমি এমন একটি সহজ ঘরোয়া উপায় সেয়ার করবো যা আমি নিজেও ব্যবহার করেছি আর এর থেকে রেজাল্টও পেয়েছি। এই ঘরোয়া উপায়টি শুধু ব্রণের দাগ দূর করে না, পাশাপাশি রোদে পোড়া দাগও দূর করতে সাহায্য করে এবং ত্বকে একটা আলাদা উজ্জ্বলতা আনে।

কি কি লাগবে



এক চামচ গ্রিন টি
এক চামচ মধু

কি ভাবে লাগাবেন

গ্রিন টি , মধু এক সঙ্গে মিশিয়ে নিন। মুখ জল দিয়ে পরিষ্কার করে নিয়ে প্যাকটি লাগান। ২০ থেকে ২৫ মিনিট রাখার পর সার্কুলার মোশনে মাসাজ করে করে প্যাকটি জলের সাহায্য তুলতে হবে। এই প্যাকটি প্রতিদিন ব্যবহার করা যাবে। যাদের অনেক বেশি গভীর দাগ তারা দিনে দু’বার ব্যবহার করুন।

গ্রিন টি

গ্রিন টিতে তে আছে ট্যানিন ও অ্যাস্ট্রিনজেন্ট উপাদান যা ত্বকের জন্য খুব ভালো। গ্রিন টি ত্বককে টান টান করতে সাহায্য করে। এই প্যাকে গ্রিন টিতে স্ক্রাবার হিসেবে ও স্কিন টোনার হিসেবে কাজ করে। যা ত্বক থেকে মৃত কোষ দূর করতে ও ত্বকের গভীরে আঁটকে থাকা ময়লা দূর করতে সাহায্য করে। অন্যদিকে 

মধু

রূপচর্চায়ও মধুর ব্যবহার সর্বজন বিদিত। মধু যে কোনো ধরনের ত্বকেই ব্যবহার করা যায়। স্বাভাবিক , তৈলাক্ত, শুষ্ক কিংবা রুক্ষ যে কোনো ত্বকের জন্য ময়েশ্চারাইজার প্রয়োজন। মধু ত্বকের ময়েশ্চারাইজার ঘাটতি কমায়, উজ্জ্বল আভা আনে, বলিরেখাও দূর করতে সাহায্য করে।

আপনি চাইলে এই প্যাকটি বানিয়ে ফ্রিজে সংরক্ষণ করেও ব্যবহার করতে পারেন। ১০ থেকে ১২ দিন প্যাকটি ফ্রিজে ভালো থাকবে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

1 মন্তব্য