ঠোঁট জন্য ৬ টি আয়ুর্বেদিক টিপস


আয়ুর্বেদ হচ্ছে এমন একটি বিজ্ঞান যা প্রাকৃতিক উপাদানকে ব্যবহার করে, আমাদেরকে একটি সুস্থ শরীর, এবং মন প্রদান করে।  আয়ুর্বেদ যে শুধু মারাত্মক রোগ নিরাময় করে, তা নয়; এই বিজ্ঞান কিন্তু সমানভাবে কার্যকর আমাদের ত্বক ও চুলের জন্য। এই বিজ্ঞান সব থেকে ভালো দিক হচ্ছে এর কোন পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া নেই। তাই আজকের পোস্টে সেয়ার করবো এমন ৬ টি আয়ুর্বেদিক টিপস যার ব্যবহার  আপনার ঠোঁটকে করে তুলবে সুন্দর ও আকর্ষনীয়।



১। শুকনো ও শুষ্ক ঠোঁট , সাধারণত এই ধরনের ঠোঁটের সমস্যা শীতকালে দেখা যায়। তবে অনেকেরই সারা বছরই ঠোঁট শুকনো ও শুষ্ক হয়ে থাকে। এই সমস্যা সমাধানের একমাত্র সহজ উপায় হল, প্রতিদিন রাতে ঘুমানোর আগে ঠোঁটে হালকা গরম ঘি মালিশ করুন। এটি ঠোঁটের আর্দ্রতা ফিরিয়ে আনবে এবং ঠোঁটের শুষ্ক ভাব দূর করবে।

২। ঠোঁটের নমনীয়তা ধরে রাখার জন্য আরেকটি সহজ উপায় হল, কালো চায়ের ব্যাগ কিছুটা গরম জলে ডুবিয়ে রাখুন। এবার এই ব্যাগটি ৫ মিনিটের জন্য ঠোঁটে চেপে ধরে রাখুন। এই পদ্ধতিটি ঠোঁটকে hydration প্রদান করবে এবং ঠোঁট হবে নরম।


৩। ঠোঁটের আরেকটি সমস্যা যা নিয়ে বেশির ভাগ মহিলারা চিন্তিত থাকেন, তা হল কালো পিগমেন্টেট ঠোঁট। এই সমস্যার সমাধান হল, কাঁচা দুধের সঙ্গে শ্বেত চন্দনের গুঁড়ো মিশিয়ে নিন। এই পেস্ট প্রত্যেকদিন ঠোঁটে লাগিয়ে রাখুন ১০ মিনিট। এই মিশ্রণটি ঠোঁটের কালো দাগ দূর করতে সাহায্য করে।

৪। আমারা ত্বকের মৃত কোষ দূর করার জন্য স্ক্রাব করে থাকি। কিন্তু এই ক্ষেত্রে ঠোঁট প্রায় অবহেলিত থাকে। ফলে ধীরে ধীরে ঠোঁটের সৌন্দর্য নষ্ট হয়ে যেতে থাকে। তাই ত্বকের পাশাপাশি ঠোঁটের স্ক্রাবিং করাও জরুরি। এই জন্য খুব ভালো উপায় হল অলিভ তেল ও চিনির মিশ্রন। এই রেসিপিটি আমি আগেও একটি পোস্টে সেয়ার করেছিলাম, নীচে লিঙ্ক দিয়ে দিলাম।

Read more : জলপাই তেল দিয়ে তৈরি ঠোঁটের স্ক্রাবার


৫। ঠোঁটের রং ফিরিয়ে আনতে একটু খুব পরিচিত টিপস হচ্ছে মধু লেবুর রসের মিশ্রণ। তবে আমি এই মিশ্রণটিকে একটি জেল এর মতো বানিয়ে নেই। একটা গোটা লেবুর সঙ্গে ২ চামচ মধু মিশিয়ে সামান্য গরম করে নিন। ঠাণ্ডা করে এই মিশ্রণটি একটি ছোট কন্টেনারে ডেলে ফ্রিজে রাখে দিন ১ থেকে ২ ঘণ্টার জন্য। এটি একদম জেলের আকার ধারন করবে। এবার আপনি আপনার সুবিধা অনুসারে এই জেলটি ব্যবহার করুন।
৬।  অন্য আরেকটি উপায় হচ্ছে বীটরুট এর ব্যবহার। এটি হচ্ছে সবচেয়ে ভাল এবং কালো ঠোঁটের জন্য সবচেয়ে সহজ পদ্ধিতি মিনিটের জন্য আপনার ঠোঁটে এক ফালি ধোয়া বীট  রুট লাগান অথবা রস করে লাগাতে পারেন কিছু সময়ের জন্য এটি রেখে দিনএর ফলে আপনার ঠোঁটের রং আরও গোলাপী হবে


সুতরাং এই হল সুন্দর, নরম ও  গোলাপী ঠোঁট ৬ টি আয়ুর্বেদিক টিপস। এই টিপসগুলি ট্রাই করে দেখুন অবশ্যই আকাঙ্খিত ফল পাবেন। এই নিয়ে কোন প্রশ্ন থাকলে অবশ্যই কমেন্টে সেকশনে করতে ভুলবেন না। আরও কোন বিষয়ে টিপস পেতে চাইলে উল্লেখ করবেন। কেমন লাগলো আজকের এই ৬ টি টিপস তাও জানাবেন। 
লেখাটি ভালো লাগলে লাইক ও শেয়ার করুন !

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য