৯ টি চুলের জন্য শ্রেষ্ঠ তেল

৯ টি চুলের জন্য শ্রেষ্ঠ তেল

চুলের জন্য সব সময় প্রাকৃতিক তেল যেমন নারকেল, অর্গান, জোজোবা, বাদাম, জলপাই এর মতো তেল  ব্যবহার করে ভালো। চুলের স্বাস্থ্যের জন্য এই তেলগুলি খুবই উপকারী এবং এগুলি সরাসরি ত্বক এবং চুলে ব্যবহার করা যেতে পারে। এই সমস্ত প্রাকৃতিক তেল অনেক গুণাবলীর অধিকারী যা চুলকে পুষ্ট ও মজবুত করতে সহায়তা করে। যেহেতু অনেক ধরনের তেল পছন্দের তালিকায় রয়েছে তাই অনেক মহিলাই ভাবছেন যে কোন তেলগুলি চুলে ব্যবহার করা সবচেয়ে ভাল। স্বাস্থ্যকর চুল পেতে, আপনাকে সঠিক ধরণের তেল বেছে নিতে সহায়তা করার জন্য আজকের এই পোস্টি খুব উপকারী হবে। 


Buy hair oil from here

নারকেল তেল

নারকেল তেল স্বাভাবিকভাবেই ব্যাকটেরিয়া ও ছত্রাক প্রতিরোধী এবং স্ক্যাল্প স্নিগ্ধ রাখতেও সাহায্য করে। এই তেল ময়শ্চারাইজ়ার হিসেবও খুব ভালো এবং চুলের উজ্জ্বলতা ধরে রাখতে সাহা্য্য করে৷

আরো পড়ুন: নারিকেল তেলের ৪টি কার্যকরী ফেসপ্যাক



কাদের জন্য উপকারী:

যাদের চুল শুষ্ক ও রুক্ষ দেখায় তাদের জন্য নারকেল তেল উপকারী। 

আমন্ড অয়েল

এই তেলটি খুবহালকা ও একেবারেই চটচটে নয়৷ ভিটামিন ই-র গুণে ভরপুর এই তেলটি চুলে পুষ্টি জোগায়, চুলের আর্দ্রতা ধরে রাখে এবং চুল মজবুত ও ঝলমলে করে তোলে৷ এই তেল খুসকি কমাতে সাহায্য করে৷ 

কাদের জন্য উপকারী:

যাদের খুব চুল পরে এবং খুশকির সমস্যা রয়েছে। 

অলিভ অয়েল

অলিভ ওয়েলে রয়েছে পর্যাপ্ত পরিমানে এসেনশিয়াল ফ্যাটি অ্যাসিড যা স্ক্যাল্পকে পুনরুজ্জীবিত করে, চুলের গোড়ায় পুষ্টি জোগায়, এবং চুলের বৃদ্ধিতে সাহায্য করে৷ এতে রয়েছে পর্যাপ্ত পরিমানে ময়শ্চারাইজ়ার এবং ভিটামিন ই যা চুলের বৃদ্ধির জন্য খুবই প্রয়োজনীয়৷ 



কাদের জন্য উপকারী:

যাদের চুল রাসায়নিক উপাদানের ব্যবহারের ফলে নষ্ট হয়ে গেছে এই তেলটি তাদের জন্য।  

Buy hair oil from here

ক্যাস্টর অয়েল

ক্যাস্টর অয়েল চুলের জন্য দারুণ কাজ করে। ক্যাস্টর অয়েলে চুল পড়া বন্ধ করে এবং চুলের বৃদ্ধি ভালো হতে  করতে সাহায্য। 

আরো পড়ুন:  চুলে কেস্টার ওয়েলের ব্যবহার
 রূপচর্চায় ৫ টি তেলের ব্যবহার

কাদের জন্য উপকারী:

যাদের অত্যধিক চুল পড়ার সমস্যা রয়েছে। 

ল্যাভেন্ডার অয়েল

চুলে ল্যাভেন্ডার  অয়েল বহুকাল থেকেই ব্যবহার হয়ে আসছে। এই তেল হেয়ার গ্রোথ এবং হেলদি স্ক্যাল্পের জন্য ব্যবহার হয়ে থাকে। একইভাবে এই ল্যাভেন্ডার অয়েল চুল পড়া প্রতিরোধ করার ক্ষেত্রেও সমানভাবে কার্যকরী। 

কাদের জন্য উপকারী:

অনেকেই চুল পড়া বা এলোপেসিয়া রোগে ভুগতে থাকেন যে রোগে মাথার কিছুটা অংশ থেকে চুল ঝরে পড়ে যায়। ল্যাভেন্ডার অয়েল এই রোগকে প্রতিহত করে। 

তিল তেল

বহু আয়ুর্বেদিক ওষুধে বেস অয়েল হিসেবে তিল তেল ব্যবহার করা হয়৷ তিল তেল চুলের বৃদ্ধিতে সাহা্য্য করে এবং স্ক্যাল্পের সংক্রমণ কমায়৷ চুল কন্ডিশনিং করতে, স্ক্যাল্পে পুষ্টির জোগান দিতে এবং খুসকি কমানোর জন্য হট অয়েল ট্রিটমেন্টে হামেশাই ব্যবহার করা হয় তিল তেল।



কাদের জন্য উপকারী:

যাদের চুল রুক্ষ ও শুষ্ক এবং  খুসকি সমস্যা রয়েছে, এই তেলটি তাদের জন্য।  

লেমনগ্রাসে অয়েল

লেমনগ্রাস অ্যাসেনশিয়াল অয়েল-এ অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়াল উপাদান মাথার তালুর ফাঙ্গাস দূর করতে সাহায্য করে। এটি চুলের ফলিকলস-কে মজবুত করে।

কাদের জন্য উপকারী:

এই তেলটি সমস্ত ধরনের  চুলের জন্য ব্যবহার করা যায়। তবে যাদের মাথার ত্বক শুষ্ক এবং খুশকির সমস্যা রয়েছে এই তেল তাদের  জন্য বিশেষ উপকারী। এটি  চুলের ফলিকলগুলিও শক্তিশালী করে।

আর্গান অয়েল

আর্গান গাছের শাঁস থেকে পাওয়া যায় আর্গান অয়েল। এই তেলটি অ্যান্টি-অক্সিডান্ট, টোকোফেরল এবং পলিফেনলে ভরপুর, ফলে পরিবেশের ক্ষতির হাত থেকে চুলকে বাঁচাতে পারে। 

কাদের জন্য উপকারী:

শুষ্ক, ভঙ্গুর, যাদের চুল এই তেলটি তাদের  জন্য আদর্শ।


জোজোবা অয়েল

নানাধরনের বিউটি ট্রিটমেন্ট আর কসমেটিকসে জোজোবা অয়েল ব্যবহার করা হয়। মাথার ত্বকে ও চুলের ফলিকলের গোড়ায় জমে থাকা তেলময়লা জমে গেলে তা চুলের বৃদ্ধিতে বাধা দেয়। জোজোবা অয়েল সেই জমে যাওয়া ময়লা পরিষ্কার করতে সক্ষম। চুলে আর্দ্রতা জোগান দিতে এবং বাইরের ক্ষয়ক্ষতির হাত থেকে চুল রক্ষা করতেও এই তেল খুবই কার্যকর। 

কাদের জন্য উপকারী:

শুকনো, ক্ষতিগ্রস্থ বা নিষ্প্রাণ চুল এবং যাদের  খুশকির সমস্যা রয়েছে এই তেলটি তাদের জন্য।  

কেমন লাগলো আজকের এই টিপস অবশ্যই জানাবেন এবং মনে কোন প্রশ্ন থাকলে নীচের মন্তব্য বাক্সে অথবা ফেসবুক পেজে আপনার প্রশ্ন করুন। আর যদি আপনার এই লেখাটি পছন্দ হয়ে থাকে, তাহলে নীচের সোশাল মিডিয়া বোতামগুলির মাধ্যমে বন্ধুদের এবং পরিবারের সাথে এটি সেয়ার করে নিন।

Buy hair oil from here

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য